পরকীয়ার অপর নাম নতুন সংসার

পরকীয়ার অপর নাম নতুন সংসার

প্রতিকী

ডিজিটাল ডেস্ক –  গ্রামবাসীর হাতে ধরা পরে, বাধ্য হয়ে নতুন সংসার করার উদ্দ্যগ নিলো তাপস ও কৃষ্ণা । কথায় আছে, ” পিরীতি কাঁঠালের আঠা লাগলে পরে ছোটে না” পুরনো সংসার ফেলে এবার নতুন সংসার করতেই চাইছেন নয়া দম্পতী ।

গ্রামবাসীরাই দুই বিবাহিত প্রেমিক-প্রেমিকাকে ধরে নিয়ে বিয়ে দিলেন মনসা মন্দিরে। ঘটনাটি ঘটছে দাসপুরের দানিকোলা গ্রামে বিবাহিত তাপস ও বিবাহিতা কৃষ্ণার প্রেমের কথা প্রায় সবাই জানে, তবে হাতে নাতে ধরার অপেক্ষা ।হরিরাজপুর গ্রামের তাপস মণ্ডল শশুর বাড়ীতে পুজা উপলক্ষে গিয়েছিলেন পাশের গ্রাম দানিকোলা তে, সেখানে গিয়ে রাতে গোপনে দেখা করতে যান বিবাহিতা প্রেমিকা কৃষ্ণার সাথে । ব্যাপারটা নজরে আসে গ্রামবাসীদের আর যায় কোথায় , গ্রামবাসীদেরও অপেক্ষার প্রহর শেষ।

[ আরোও পড়ুন –  যৌন উত্তেজনা বর্ধক ওষুধ তৈরির মাশরুম উদ্ধার  ]

তাপস মণ্ডল ও কৃষ্ণা হাইতির দুজনেরই রয়েছে দুটি করে সন্তান । দুজনকে নিয়ে শিতলা মনসা মন্দিরে, শাখ বাজিয়ে মিষ্টি মুখ করিয়ে বিবাহ পর্ব সারেন গ্রামবাসীরা । উল্লেখ, দাসপুরের পাশাপাশি দুই গ্রাম দানিকোলা ও হরিরাজপুর, তাপস মণ্ডলের শশুর বাড়ি দানিকোলাতে আর পাশাপাশি বাড়ি কৃষ্ণা হাইতির মুলত এই শশুরবাড়ী যাতায়াতে কৃষ্ণা তাপসের পরিচিতি ধীরে ধীরে পরকীয়ার রুপ নিয়েছে। আর এখনতো ফৌজদারীতে  পরকীয়ার কোন বাঁধাও নেই । তবে, অচিরের ভেঙ্গে গেলো কৃষ্ণা তাপসের আগের সংসার। বিবাহ শেষে তাপস মণ্ডল জানায়” তিনি এটাই চেয়েছিলেন, আর এই বিয়ে তিনি খুবি খুশি”। অন্যদিকে কৃষ্ণা হাইতিও মাথা নারিয়ে সায় দিয়ে বলেন “তারও এই বিয়েতে সহমত, সেও চায় নতুন সংসার করতে”।


Comments are closed.

© প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । শুধুমাত্র দাপ্তরিক লোগোটি উন্মুক্ত CC BY-SA 4.0  | অন্যান্য ওয়েবসাইটের কনটেন্টের জন্য বং-সময় দায়ী নয় ।

বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ - 8250897850