নববর্ষের মঙ্গল শোভাযাত্রা কে জোর কটাক্ষ : বিজেপি
নববর্ষের মঙ্গল শোভাযাত্রা কে জোর কটাক্ষ : বিজেপি

নববর্ষের মঙ্গল শোভাযাত্রা কে জোর কটাক্ষ : বিজেপি

মঙ্গল শোভা যাত্রা রায়গঞ্জ
ছবি - নিজস্ব

নিজস্ব সংবাদদাতা –  রায়গঞ্জে পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে উত্তর দিনাজপুর রায়গঞ্জে সাত সকালে অনুষ্ঠিত হয়, মঙ্গল শোভাযাত্রা। বাংলা নতুন বছরের আনন্দের বার্তা সবার সাথে ভাগ করে নিতেই আপামর রায়গঞ্জবাসী পা মেলান এই শোভা যাত্রায়।

নাচ-গান, হাতি ঘোড়া, প্যাঁচা, মাছ হাতে নিয়ে এক সুন্দর সাজ সজ্জিত সকাল মন কেড়েছে রায়গঞ্জবাসীর।তবে, ভোটের মরশুমে এই মঙ্গল শোভা যাত্রা কে কটাক্ষ করতে ছারেনি বিজেপি রাজনৈতিক দল। রায়গঞ্জ লোকসভা নির্বাচনের বাকি মাত্র আর কয়েক ঘণ্টা। তবে, মঙ্গল শোভা যাত্রাকে রাজনৈতিক দাঁড়িপাল্লায় মাপ ধরে নিয়েছে বিজেপি।গতকালের মঙ্গল শোভা যাত্রায়, উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জের পুরসভার চ্যায়ারম্যান সন্দীপ বিশ্বাস, প্রাক্তন পুরসভার চ্যায়ারম্যান মোহিত সেনগুপ্ত এবং সাংসদ মহঃ সেলিম সহ শহরের গণ্য মান্য নেতা সহ সাধারণ ব্যাক্তিরা।

তবে, এই মঙ্গল শোভা যাত্রায় মহঃ সেলিমের উপস্থিতি কে কটাক্ষ করেন বিজেপি উত্তর দিনাজপুর জেলা সভাপতি নির্মল দাম। তার বক্তব্য “মহঃ সেলিম কে পরিকল্পিত ভাবে শোভা যাত্রাতে প্রচার করানো হয়েছে”। মঙ্গল শোভা যাত্রা সংগঠনের আয়োজকের অন্যতম, শুভেন্দু মুখোপাধ্যায় বলেন, “কোন রাজনৈতিক প্রচারের স্বার্থে আমাদের মঙ্গল শোভা যাত্রার আয়োজন ছিলো না” রায়গঞ্জের বিধায়ক,সাংসদ এবং পুর প্রধান কে আমরা আমন্ত্রণ জানিয়েছি এবং তারা আমাদের আমন্ত্রণে পা মিলিয়েছেন। একই ভাবে, সন্দীপ ও মোহিত বাবু বলেন কোন রাজনৈতিক টানে নয় প্রিয় রায়গঞ্জ বাসীর সাথে নববর্ষের সকালে থাকতে পেরে ধন্য মনে করছি। মহঃ সেলিম গতকাল স্পষ্ট বলেন,” আমি নির্বাচনের প্রার্থী হয়ে নয়, সবার সাথে শুধুমাত্র নববর্ষের আনন্দের ভাগ নিতে এসেছি, তবে আমার এখানে বেশিক্ষণ থাকাটা বিতর্কের কারন হতে পারে।”

তবে, বিজেপির পক্ষে বলা হয় আয়োজন টা জেনো রাজনৈতিক না মনে হয় তার জন্যই কংগ্রেস ও তৃণমূল কে আমন্ত্রণ জানিয়েছে আয়োজকরা । প্রসঙ্গত, গতকাল মঙ্গল শোভা যাত্রায় মহঃ সেলিম কে ঢাক বাজাতে দেখা যায় এবং সবার সাথে সেলফি নিতেও দেখা যায়।


Comments are closed.

© 2019 প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | Logo-CC BY-SA 4.0

অন্যান্য ওয়েবসাইটের কনটেন্টের জন্য বং-সময় সংবাদ দায়ী নয় ।